20210528 202916 compressed

মেসি বনাম নেইমার – গাড়ি, ইনকাম, টাকা, বাড়ি ইত্যাদি

মেসি বনাম নেইমার – গাড়ি, ইনকাম, টাকা, বাড়ি ইত্যাদি…

বন্ধুরা কেমন আছেন সবাই তো বন্ধুরা আজকের এই পোস্টে আমরা জানবো বর্তমান বিশ্বের দুই জনপ্রিয় ফুটবল খেলোয়ার লিওনেল মেসি এবং নেইমার জুনিয়ার এর লাইফ স্টাইল দাড়ি এবং জনপ্রিয়তা সম্পর্কে আমরা জেনেছি মেসি এবং রোনালদো সম্পর্কে তাই আপনারা অনেকেই রিকুয়েস্ট করেছিলেন যে মেসি এবং নেইমার এর তুলনামূলক আলোচনা করতেন তাই আজকের এই পোষ্টে এই দুই খেলোয়াড়ের মধ্যে দেখব যে কার সম্পদ বেশি এবং কার গাড়ি কালেকশন বেশি আর কিবা বিলাসবহুল জীবনযাপন এগিয়ে রয়েছে।

মেসি বনাম রোনালদো
মেসি বনাম রোনালদো

তো দেরি না করে মূল পোস্টে চলে যাচ্ছে প্রথমে সম্পদের তুলনা করে দেখি যেমন বর্তমান সময়ে লিওনেল মেসির মোট সম্পত্তির পরিমাণ 400 মিলিয়ন ইউএস ডলার মানে তার গাড়ি এবং বাড়ি বাদ দিয়ে তার কাছে শুধু ক্যাশ টাকা রয়েছে 400 মিলিয়ন ইউএস ডলার বা 3 হাজার 400 কোটি টাকা এবং 2021 অনুযায়ী লিওনেল মেসি প্রতিবছর 71.

ইউরও পারিশ্রমিক পান বাংলাদেশি টাকায় মোটামুটি 717 কোটি টাকা আর 2021 এর বেশি হচ্ছে সব থেকে হাই স্পিড প্লেয়ার এবং অন্যদিকে বর্তমান সময়ে নেইমারের মোট সম্পত্তির পরিমাণ 200 মিলিয়ন ইউএস ডলার বাংলাদেশি টাকায় মোটামুটি 1700 কোটি টাকা মানে গাড়ি-বাড়ি বাদ দিয়েও নেইমারের কাছে শুধু ক্যাশ টাকা রয়েছে 1700 কোটি টাকা এ ছাড়া নেইমার প্রতিবছর শুধু ফুটবল খেলে পারিশ্রমিক পান 34 মিলিয়ন ইউএস ডলার বা 306 কোটি টাকা তো তুলনামূলক আলোচনা করলে নেইমারের থেকে সম্পদের দিক দিয়ে এবং বাৎসরিক আয়ের দিক দিয়ে মেসি বেশ অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে.

See More: গুগল এডস লিমিট কেনো হয়?

এবার তাদের গ্যারেজ থেকে ঘুরে আসি মানে দেখে আসি যে গাড়ির কালেকশনের দিক দিয়ে এগিয়ে রয়েছে তো প্রথমে শাড়ির কালেকশন দেখে আসি তুমি চির গ্যারেজে মোটামুটি চোখ দুটি গাড়ি রয়েছে আর লিওনেল মেসির e14 গাড়ির মূল্য প্রায় 260 কোটি টাকা দুই মাসের গ্যারেজের গাড়িগুলো হচ্ছে ফেরারি 35.

আর এই গাড়িটি মেশিন সবথেকে প্রিয় গাড়ি এবং এই গাড়িটি অনেক পুরনো মানে উনিশশো সাতান্ন সালের দিকে তৈরি করা যার কারণে এই গাড়িটির দাম এত এবং এই গাড়িটির মূল্য মোটামুটি 35 মিলিয়ন ইউএস ডলার বাংলাদেশি টাকায় 260 কোটি টাকা.

এ ছাড়া রয়েছে দুই টিনেজার গ্র্যান্ডপা প্রথমটি হচ্ছে দুই কোটি 50 লক্ষ রুপি আর দ্বিতীয়টি হচ্ছে দুই কোটি 25 লক্ষ রুপি মূল্যে ট্রেজারিতে গ্র্যান্ড টু বিজনেস রয়েছে তিন কোটি টাকা মূল্যের একটি অডি r8 v10 চার্জারটি একটি অডি কোম্পানির অডি r8 স্পাইডার অডি কোম্পানির 80 লক্ষ টাকার একটি অডি q7 135 কোটি টাকা মূল্যের ফেরারি f430 স্পাইডার 1931 উত্তর লাখ রুপির ক্যাডিল্লাক এস্ক্যালাদে একটি মিনি কুকার আর এই গাড়িটি বিশেষ করে সেলিব্রিটিদের কাছে বেশি লক্ষ্য করা যায় যেমন রয়েছে বলিউডের দুই নায়ক রিত্তিক.

হাসান এবং টাইগার শ্রফের কাছে এছাড়া রয়েছে একটি রেঞ্জ রোভার ভোগ আর মেসির সব থেকে কম দামি গাড়ি কি হচ্ছে 46 লক্ষ টাকা মূল্যের টয়োটা প্রিয়াস এইসব গাড়ি ছাড়াও লিওনেল মেসির একটি প্রাইভেট জেট প্লেন রয়েছে যার নাম গার্লস টিভি আর এই প্রাইভেট জেট তৈরি করেছে আমেরিকার বিখ্যাত প্লেন তৈরি কোম্পানি আরে প্রাইভেট জেট এর মূল্য মোটামুটি 500 কোটি টাকা.

তো যাই হোক এই প্রাইভেট জেট প্লেনে রয়েছে একটি সুন্দর কিচেন দুইটি বাথ্রুম এ ছাড়া রয়েছে 16 টি সির যেগুলোকে যেকোনো সময় বিছানাতে কনভার্ট করা যায় তো যাই হোক এবার আসা যাক নেইমারের গাড়ির কালেকশনের দিকে আর নেইমারের কাছে কিন্তু পৃথিবীর সবথেকে বিলাসবহুল এবং দামি গাড়ি গুলো রয়েছে যেমন তার কাছে রয়েছে ইতালিয়ান ধর্ষণ ল্যাম্বরগিনি ভেনেনো আর মজার ব্যাপার হচ্ছে এই গাড়িটি পুরো দুনিয়ার জন্য নয় পিস তৈরি করা হয়েছে এবং গাড়িটির মূল্য মোটামুটি চল্লিশ কোটি টাকা এ ছাড়া নেইমারের কালেকশনে পৃথিবীর আরেকটি সবথেকে বিলাসবহুল দামি সুপার কার.

পাসপোর্ট রয়েছে আর এই গাড়িটি দেখতে অনেক সুন্দর তবে এই গাড়িটা আমরা অনেকেই ফাস্ট এন্ড ফিউরিয়াস সেভেন মুভিতে দেখেছি আর এই গাড়িটি দেখা যায় সেই মুহূর্তে এক বিল্ডিং থেকে অন্য বিল্ডিংয়ে লাফাতে আর এই গাড়িটি পুরো দুনিয়ার জন্য 7 পিস তৈরি করা হয়েছে এবং এই সুন্দর গাড়ির মূল্য বাংলাদেশি টাকায় মোটামুটি 30 কোটি টাকা.

এ ছাড়া রয়েছে ব্রিটিশ কোম্পানির তৈরি একটি অ্যাস্টন মার্টিন ভুল জ্ঞান এবং এই গাড়িটি ও লিমিটেড এডিশন আর এই গাড়িটির মূল্য বাজারে মোটামুটি 18 কোটি টাকা তো যাই হোক নেইমারের আরেকটি সুপারকার হচ্ছে ccxxv চা এবং গাড়ির মূল্য বাংলাদেশের টাকায় মোটামুটি চল্লিশ কোটি টাকা আরও রয়েছে ইতালিয়ান বিখ্যাত ব্র্যান্ড মাজোরিটি ইন সিটু এল আর এ গাড়িটি মোটামুটি 12 কোটি টাকা যাইহোক নেইমারের আরেকটু কম দামি গাড়ি গুলো হচ্ছে ফেরারী 458 ইতালিয়া রয়েছে অডি rs7 রয়েছে অডি r8 এছাড়া রয়েছে অডি q7 তো বুঝা যাচ্ছে বিরাট কোহলির মতো নেইমার অডি কোম্পানির একজন বড় ভক্ত এছাড়া রয়েছে.

ভুতু ভাই সত্যি কথা বলতে মেসি এবং রোনালদো মিলে গাড়ির কালেকশনের দিক দিয়ে নেইমারের কাছে ভিড়তে পারবে না নেইমার হচ্ছে পৃথিবীর বিখ্যাত সব সুপারকার গুলো ব্যবহার করে থাকে শুধু এখানেই শেষ নয় যেমন নেইমারের কাছে রয়েছে দুইটি প্রাইভেট জেট প্লেন প্রথমটির নাম হচ্ছে এই যে আর মানে নেইমার জুনিয়ার যার দাম হচ্ছে চার মিলিয়ন ইউএস ডলার বা 34 কোটি টাকা এবং অন্যটি ক্রয় করেছিলেন 5 মিলিয়ন ইউএস ডলার দিয়ে বা বাংলাদেশি টাকায় 42 কোটি 50 লক্ষ টাকা এবং তিনি খুব সম্প্রতি একটি হেলিকপ্টার প্রায় করেছে যেটি এয়ারবাস কোম্পানির খুব দামী একটি হেলিকপ্টারের দাম বাংলাদেশি টাকায় মোটামুটি 130 কোটি টাকা এগুলো ছাড়াও নেইমারের একটি বিলাসবহুল জাহাজ রয়েছে যার দাম প্রায় 8 মিলিয়ন ইউএস ডলার বাংলাদেশি টাকায় 68 কোটি টাকা এই বিলাসবহুল জাহাজ এর মধ্যে বিভিন্ন সুবিধা রয়েছে এই বিলাসবহুল জাহাজ এর ভেতর ফাইভ স্টার হোটেলের মতো বিভিন্ন ফ্যাসিলিটি রয়েছে এছাড়া প্রতি বছর এই নৌকা মেন্টেন করতে নেইমারকে লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ করতে হয় তো এতক্ষণে আপনি হয়তো.

পেরেছেন যে নেইমার কোন লেভেলে একজন সৌখিন ফুটবলার মোট কথা হচ্ছে সৌখিনতার দিক দিয়ে রোনালদো কিংবা মেসি-নেইমারের ধারে কাছে আসতে পারবে না যাইহোক বর্তমানে বসবাস করছেন ক্যাস্টেল ডিটেলস নামের এই জায়গাটিতে মেসির বাড়ির ভেতরে বিভিন্ন ধরনের সুবিধা রয়েছে এছাড়া মেসির বাড়ির ভেতরে রয়েছে একটি ফুটবল প্লিজ যেখানে বেশিরভাগ সময় অনুশীলন করে সুন্দর করে বাড়িটির মূল্য প্রায় 50 কোটি টাকা আর মেসির দ্বিতীয়বার এটি দেখতে পারে একটি অ্যাপেল কোম্পানির অফিস এর মত বার্সেলোনা শহর থেকে 30 কিলোমিটার দূরে পাহাড়ের মধ্যে রয়েছে এই বাড়িটি আর অন্যদিকে নেইমার বর্তমানে বসবাস করছেন ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের একটি বিলাসবহুল বাড়িতে এবং এই বাড়িটির মূল্য মোটামুটি 80 কোটি টাকা এছাড়াও নেইমারের কাছে রয়েছে একটি বিশাল বড় অ্যাপার্টমেন্ট এবং এই অ্যাপার্টমেন্টের মূল্য মোটামুটি 180 কোটি টাকা তো যাই হোক এবার তাদের ক্যারিয়ার সম্পর্কে কিছু কথা বলা যায় যদিও মেসির সাথে নেইমার কোনদিন স্কিল.

চ্যানেলটির দিক দিয়ে জিততে পারবে না তো যাই হোক নেইমার এই পর্যন্ত মোট 229 টি গোল করেছে তার মধ্যে 100 পাঁচটি করেছে বার্সেলোনা ক্লাব থেকে আর 70 টি গোল করেছে সেন্ট্রাল এসি থেকে আর বাকি 54 টি গোল করেছে প্যারিস এইচডি থেকে এবং মজার ব্যাপারটি হচ্ছে নেইমারের মোট চারটি গোল্ডেন বুট রয়েছে এবং নেইমার এখন পর্যন্ত কোনো ব্যালন ডি’অর জেতেননি আর অন্যদিকে বেশী তার সারা জীবনে মোট গোল করেছে 750 টি উপরে..

আর মজার ব্যাপারটি হচ্ছে এর মধ্যে 634 টি গোল শুধু বার্সেলোনা ক্লাবের জন্য করেছেন আর মেসির কাছে বর্তমানে মোট আটটি গোল্ডেন বুট রয়েছে এবং মেসি এখনো পর্যন্ত 6 টি ব্যালন ডি’অর কাপ জিতেছে তো যাইহোক এতক্ষণ মেসি এবং নেইমার সম্পর্কে কথা বলার পর মোটামুটি ধারণা পাওয়া গেল যে খেলার দিক দিয়ে নেইমার মেসিকে কোনোভাবে হারাতে পারবে না আর যদি হারাতে চায় তাহল নেইমারের এখনো 100 থেকে 200 বছর লাগবে আর অন্যদিকে মেসির বিলাসিতা দিক দিয়ে কোন ভাবে নেইমারকে হারাতে পারবে না। তো আপনি কার ভক্ত কমেন্টে অবশ্যই জানাতে ভুলবেন না। ধন্যবাদ

About Sonyo

Check Also

টাইগার শ্রফ VS হৃতিক রোশন - বিষয়ে খুটি নাটি।

টাইগার শ্রফ VS হৃতিক রোশন – বিষয়ে খুটি নাটি।

টাইগার শ্রফ VS হৃতিক রোশন – বিষয়ে খুটি নাটি। বন্ধুরা কেমন আছেন সবাই তো বন্ধুরা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *